শনিবার, ১৭ই আগস্ট, ২০১৯ ইং

কি কারণে মৃত্যুকূপ কুমিল্লা ধর্মসাগর

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
আগস্ট ৩, ২০১৮
news-image

 

সেলিম সজীবঃ

কুমিল্লা নগরীর ধর্মসাগর এখন রীতিমত মৃত্যুকূপে পরিণত হয়েছে। এখানে গোসল করতে নেমে প্রায় প্রাণ যাচ্ছে অনেকের। কেন এমন হচ্ছে , তা নিয়ে একটু গভীরে যাওয়া যাক।

ত্রিপুরার অধিপতি মহারাজা প্রথম ধর্মমাণিক্য ১৪৫৮ সালে ধর্মসাগর খনন করেন। অঞ্চলের মানুষের জলের কষ্ট নিবারণ করাই ছিল রাজার মূল উদ্দেশ্য।

রাজমালা গ্রন্থ আনুসারে মহারাজা সুদীর্ঘ ৩২ বৎসর রাজত্ব করেন (১৪৩১-৬২ খ্রি:)।মহারাজা ধর্মমাণিক্যের নামানুসারে এর নাম রাখা হয় ধর্মসাগর। ধর্মসাগর নিয়ে ছড়িয়ে রয়েছে বহু উপাখ্যান ও উপকথা।

বারমুডা ট্রায়াঙ্গলের কথা আমরা অনেকেই শুনেছি। আটলান্টিক মহাসাগরের এই স্থানটিকে ঘিরে রয়েছে এক ভৌতিক রহস্য। অনেকেই সেই রহস্য শুধু শুনেই গেছেন কিন্তু বাস্তবে দেখার ভাগ্য কয়জনের হয়েছে! ভৌতিক এই কাহিনী সম্পর্কে জানা যায়, ওই স্থানটির উপর দিয়ে কোন কিছুই যেতে পারে না। যা কিছুই যাওয়ার চেষ্টা করে না কেন তাই ওই রহস্যঘেরা সমুদ্রের অতল গভীরে হারিয়ে যায়। কুমিল্লাও রয়েছে এমন একটি স্থান যেখানকার রহস্য ওই বারমুডা ট্রায়াঙ্গলের রহস্যের চেয়ে কম নয়।

পার্থক্য শুধু বারমুডা ট্রায়াঙ্গল সুদূর আটলান্টিক মহাসাগরে আর বাংলাদেশের এই স্থানটি হলো কুমিল্লা ধর্মসাগর পাড় পুকুর। কুমিল্লা ধর্মসাগর পুকুরে ডুবে প্রাণ যাওয়ার ঘটনা নতুন নয়। বারমুডা ট্রায়াঙ্গলের মত এই পুকুরটিও অসংখ্য মানুষকে নিজের খাদ্যে পরিণত করেছে। এই বিষয়টিকে কেউ দিয়েছেন ভৌতিক ব্যাখ্যা আবার কেউ দিয়েছেন বৈজ্ঞানিক ব্যাখা।

এইতো, বৃহস্পতিবার বিকেলে নবম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত ১২ জন বন্ধু ধর্মসাগরে গোসল করতে নামে। তাদের মধ্যে ২ জন পানিতে ডুবে যায়।

ধর্মসাগর পাড়ে বসবাস কারি সেলিনা হায়াৎ জানান, এটা অনেক পুরাতন পুকুর। পুকুর নিয়ে অনেক আগে থেকেই ভৌতিক কাহিনী রয়েছে। এখানে সাঁতার কাটতে গিয়ে পুকুরের মাঝখান থেকে নিচের দিকে তলিয়ে গেছে একাধিক শিক্ষার্থী। পরে তাদের মৃতদেহ ভেসে ওঠে।

সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার বেলা তিনটার দিকে গোসল করতে নেমে পুকুরে ডুবে মারা যায় দুই স্কুল ছাত্র। তাদের বাড়ি নগরীর তালপুকুরপাড়।

জানা যায়, বিকেলে নবম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত ১২ জন বন্ধু ধর্মসাগরে গোসল করতে নামে । তাদের মধ্যে ২ জন পানিতে ডুবে যায়। তারা সাঁতরে পুকুর পার হওয়ার সময় মাঝপুকুরে গিয়ে তলিয়ে যায়। পরে বাকি বন্ধুরা তাদের দুইজনকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেলে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে।

এইতো আরো কয়েকদিন আগে, (১২ আগষ্ট) ধর্মসাগরপাড় ডুবে ওয়ান ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু। নিহত রুবায়েত ঢাকা ওয়ান ব্যাংকে কর্মরত ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, রুবায়েত ইমরানের স্ত্রী হাসি আক্তার সম্প্রতি কুমিল্লার আনসার ভিডিপির সহকারী পরিচালক হিসেবে যোগদান করেন। স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে ঢাকা থেকে কুমিল্লায় আসেন রুবায়েত ইমরান।

দুপুরে ধর্মসাগরে গোসল করতে গিয়ে পানিতে নেমে ডুব দিয়ে তিনি উঠেননি। পানিতে ডুব দেওয়ার ১৫ মিনিট পর তার মরদেহ ভেসে উঠে। পরে স্থানীয়রা তাকে নগরীর মুন হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নগরীর বিবির বাজারের, ব্যাবসায়ী শুভ আহম্মেদ দৈনিক আজকের কুমিল্লাকে জানান, ধর্মসাগরপাড় কিছু সচেতনতামূলক সাইনপোস্ট স্থাপনের করলে ভালো হয়।

এদিকে পুকুরের পানিতে মৃত্যুর কারণ কি হতে পারে এমন প্রশ্নে কুমিল্লা ইবনে তাইমিয়া স্কুলের ফিজিক্স বিভাগের শিক্ষক এবি সিদ্দিক দৈনিক আজকের কুমিল্লাকে জানান, পুকুরের পানি পুরানো হলে এতে অক্সিজেনের পরিমাণ কমে যায়। ফলে পুকুরের মাঝখানে নিম্নমুখী চাপ সৃষ্টি হয়। আর পুরানো পুকুরে এটি আরো বেশি। তাই একজন ডুব দিলে তাকে নিম্নমুখী চাপ নিচের দিকে টেনে নিতে চায়। তাই সাঁতার কাটার জন্য দরকার পানিতে পরিমাণ মত অক্সিজেন। ধর্মসাগর পুকুরটিতে পরিমাণ মত অক্সিজেন না থাকায় এটি হতে পারে।

আর পড়তে পারেন