মঙ্গলবার, ২০শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

বার্সা পারল না, শিরোপা রিয়ালের

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
আগস্ট ১৭, ২০১৭
news-image

 

স্পোর্টস ডেস্কঃ

আবারও পারলো না বার্সেলোনা। প্রথম লেগে রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হারার পর দ্বিতীয় লেগেও হারের তিক্ততা নিতে হলো মাঠ ছাড়ল মেসি-সুয়ারেসরা। বার্সার বাজে পারফরম্যান্স অবশ্য এর জন্য দায়ী। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সাকে বিধ্বস্ত করে স্প্যানিশ সুপার কাপ জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ।

বুধবার (১৬ আগস্ট) রাতে সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে বার্সেলোনাকে ২-০ গোলে হারিয়ে দুই লেগ মিলিয়ে ৫-১ ব্যবধানে শিরোপা জিতেছে জিনেদিন জিদানের দল।

ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, গ্যারেথ বেল ও ইসকোকে ছাড়াই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের বিরুদ্ধে মাঠে নামে রিয়াল। রোনালদো অবশ্য ৫ ম্যাচ নিষিদ্ধ থাকার কারণে মাঠে নামতে পারেননি। তবে বেল ও ইসকোকে বিশ্রামে রাখেন জিনেদিন জিদান। তাদের ছাড়াই মাঠে নেমে বার্সাকে নাকানি-চুবানি করে রিয়াল।

খেলার ৪র্থ মিনিটেই বার্সার জালে বল পাঠিয়ে দেন আসেনসিও। প্রায় ৩০ গজ দূর থেকে তার আচমকা শট যে জালে ঢুকতে পারে তা যেন ভাবতেই পারেননি সামান্য এগিয়ে থাকা মার্ক আন্ড্রে টের স্টেগেন।

৩৯তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন বেনজেমা। বাঁ-দিক থেকে মার্সেলো ছয় গজ বক্সে বেনজেমাকে পাস দেন। তার ঠিক পিছনেই ছিলেন সামুয়েল উমতিতি; কিন্তু তিনি যেন কিছু বুঝতেই পারলেন না, বল ধরে জায়গা বানিয়ে জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করেন ফরাসি স্ট্রাইকার।

বার্সেলোনার খেলা ছিল শুরু থেকেই ছন্দহীন। খেলোয়াড়দের মধ্যে ছিল বোঝাপড়ায় ঘাটতি। প্রিয় খেলোয়াড়দের একের পর এক ভুল পাস সমর্থকদের শুধু হতাশায় বাড়িয়েছে।

প্রথমার্ধে অতিথিদের পারফরম্যান্সের উল্লেখযোগ্য দিক বলতে লিওনেল মেসির দুটি একক প্রচেষ্টা। অষ্টাদশ মিনিটে দুজনকে কাটিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়লেও শট নিতে পারেননি। খানিক পরেই বাঁ-দিক থেকে গোলমুখে বল বাড়িয়েছিলেন; কিন্তু সময়মতো ঠিক জায়গায় যেতেই পারেননি অনুজ্জ্বল সুয়ারেস।

বিরতির পর কিছুটা গোছানো বার্সার দেখা মেলে। ৫৩তম মিনিটে ব্যবধান কমতেও পারতো; কিন্তু দুজনের ফাঁক গলে ডি-বক্সে ঢুকে মেসির নেওয়া কোনাকুনি শট ক্রসবারে লাগে। দুই মিনিট পর বেনজেমার কোনাকুনি শট টের স্টেগেনের কাঁধে লেগে বাইরে চলে যায়।

এ বছরে এই নিয়ে চতুর্থ এবং ২০১৭-১৮ মৌসুমে দ্বিতীয় শিরোপা জিতলো রিয়াল। এ মাসের শুরুতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে হারিয়ে উয়েফা সুপার কাপ জিতেছিল মাদ্রিদের ক্লাবটি।

আর পড়তে পারেন