রবিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং

বানরের বাঁদরামির শাস্তি!

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ফেব্রুয়ারি ৭, ২০১৬

ঢাকা: বানর একটু অর্ধেক বাঁদরামি করবে- এটাই স্বাভাবিক। আজ এর ঘরের তরকারি চুরি তো কাল ওর ঘরের বালিশ ছিঁড়ে তুলা ওড়ানো! কিন্তু কথায় আছে ‘চোরের দশদিন গৃহস্থের একদিন’। ‍মুম্বাইয়ের এই দুষ্টু বানরটির অবস্থা হয়েছে তাই। বাঁদরামির শাস্তি পেতেই হলো তাকে।Monkey_467105379

মুম্বাইয়ে একটি সম্প্রদায়কে অসহ্য জ্বালাতন করার জন্য এই বানরটিকে বেঁধে রাখা হয়। দু’হাত, দু’পা এমনকি গলায়ও দড়ি দিয়ে চুপচাপ বসিয়ে রাখা হয় দুষ্টু বানরটিকে। আর তাকে ধরতে নিয়োগ করা হয় পেশাগত বানর শিকারি (Catcher)।


অতিষ্ঠ স্থানীয়রা জানান, বানরটি গত ছয়মাস ধরে তাদের বাড়ি থেকে খাবার চুরি করছে ও বালিশ ছিঁড়ে কুটিকুটি করছে।
এএফপির ভাষ্যমতে, ভারতের বাণিজ্যিক এলাকা সায়নে বানরটিকে ধরার পর বেঁধে খাঁচাবন্দি করা হয়। এ ঘটনা দেখতে ঘটনাস্থলে জড়ো হয় অনেক লোক।


দীর্ঘদিন ধরে তিন-চারটি বানর এভাবে জ্বালাতন করছিলো কেন্দ্রীয় মুম্বাইয়ের এ স্থানটিতে। এ বানরটি ওগুলোর একটি।
স্থানীয়রা সম্প্রতি পৌর কাউন্সিলরকে বিষয়টি সম্পর্কে অবগত করেন।


শুক্রবার (৫ ফেব্রুয়ারি) যখনই এ বানরটিকে স্থানীয়রা দেখতে পান তখনই বানর শিকারিকে খবর দেওয়া হয়।

তিনি ফল দিয়ে ফাঁদ পেতে বানরটিকে পরাস্ত করেন। হাত-পা বেঁধে দেওয়ার পর বানরটি অবশ্য বেজোয় খেপেছিলো। পরে তার বাঁধন খুলে খাঁচায় স্থানান্তর করা হয়।


বাঁদরামির শাস্তি হিসেবে মুম্বাইয়ের উত্তরে গ্রামাঞ্চলে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বানরটিকে।

তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।