মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০২০

১৬২ কোটি টাকার প্রকল্প ব্যয় দু দফায় বেড়ে হয়েছে ৫০০ কোটি টাকা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুলাই ৮, ২০২০
news-image

ডেস্ক রিপোর্ট:

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের (আইএমইডি) নিবিড় পরিবীক্ষণ সমীক্ষা প্রতিবেদনে এ চিত্র উঠে এসেছে। ২০০৬ সাল থেকে ২০০৯ সালে বাস্তবায়নের লক্ষে ‘মোহাম্মদপুর-এফ-ব্লকে সীমিত আয়ের লোকদের নিকট বিক্রয়ের জন্য ৯০০টি আবাসিক ফ্ল্যাট নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্পটি হাতে নেয় গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ।

আইএমইডির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ প্রকল্পের আওতায় ১৫টি ভবন নির্মাণ করার কথা রয়েছে। এর মধ্যে চারটি ভবনের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। বাকি ১১টি ভবনের কাজের অগ্রগতি ৭৭ দশমিক ২৭ শতাংশ। ডিপিপি বা আরডিপিপিতে সংযুক্ত ক্রয় পরিকল্পনার সঙ্গে মিল রেখে বার্ষিক ক্রয় পরিকল্পনা তৈরি করা হয়নি। পণ্য ও কাজ ক্রয়ের ক্ষেত্রে সরকারি ক্রয় আইন ও বিধিমালা অনুযায়ী সম্পন্ন করা হচ্ছে। তবে কাজ ক্রয়ের ক্ষেত্রে দরপত্র আহবান, কার্যাদেশকৃত তারিখ এবং চুক্তি সইয়ের মধ্যে কিছু জায়গায় ব্যত্যয় লক্ষ্য করা গেছে।

প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, নির্ধারিত সময়ে প্রকল্পের কাজ শেষ না হওয়ায় ২০০৮ সাল থেকে এ পর্যন্ত প্রকল্পটি বাস্তবায়নের মেয়াদ চারবার এবং দুবার ব্যয় বাড়ানো হয়েছে। তারপরও ২০২০ সাল পর্যন্ত প্রকল্পের ভৌত অগ্রগতি ৮৩ দশমিক ৩৩ শতাংশ এবং আর্থিক অগ্রগতি ৪৬ দশমিক ৩০ শতাংশ। বর্তমানে প্রকল্পের মেয়াদ ২০২১ সালের ডিসেম্বর মেয়াদে এটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, পরবর্তী মেয়াদে প্রকল্পটি বাস্তবায়নে আইএমইডির প্রতিবেদনটি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কাজ সমাপ্ত করতে সহায়ক হবে। প্রকল্পের কাজ এ সময়ের মধ্যে শেষ করতে আমাদের পক্ষ থেকে তদারকি অব্যহত থাকবে।

আর পড়তে পারেন