শনিবার, ১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

স্থগিত চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নেবে জেলা ও পৌর বিএনপি নেতারা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
সেপ্টেম্বর ৭, ২০২০
news-image

 

ডেস্ক রিপোর্টঃ

স্থগিত চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১০ অক্টোবর। আর এ পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে বলে জানিয়েছেন চাঁদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক।

শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক জানান, চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন সামনে রেখে জেলা ও পৌর বিএনপি নেতারা যৌথ সভায় নির্বাচনে অংশগ্রহণের ব্যাপারে মত দিয়েছেন। তাদের সংখ্যাগরিষ্ঠ মতামতের ভিত্তিতে শনিবার আমাদের প্রস্তাবনা কেন্দ্রীয় কমিটিতে পাঠালে দলের স্থায়ী কমিটির সভায় এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়।

এদিকে ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর, রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর ও প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৪ সেপ্টেম্বর।

গত ২৯ মার্চ চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী সফিকুর রহমান ভূঁইয়া গত ১৩ মার্চ ইন্তেকাল করেন। তার মৃত্যুতে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয় চাঁদপুর পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন।

গত ১৬ মার্চ গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে নির্বাচন স্থগিত করে কমিশন। ৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশন এক প্রজ্ঞাপনে নির্বাচনী পুনঃতফসিল ঘোষণা করেছে। এতে বলা হয়েছে, স্থগিত মেয়র, সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং সাধারণ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচনের জন্য সময়সূচি ঘোষণা করা হলো। এর মধ্যে শুধুমাত্র মেয়র পদে সম্ভাব্য প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র দাখিলের সুযোগ পাবেন।

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদের বিদ্যমান অন্য দু’জন প্রার্থী হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থী মামুনুর রশিদ বেলাল।

জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক আরও বলেন, এই নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু হয় ৬ সেপ্টেম্বর। মনোনয়ন ফরম জমা নেয়া হবে ৮ সেপ্টেম্বর। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে ৯ সেপ্টেম্বর। স্থানীয়ভাবে প্রার্থী চূড়ান্ত করা গেলে প্রার্থিতা ঘোষণা করা হবে ১০/১১ সেপ্টেম্বর।

চাঁদপুর জেলা বিএনপির পক্ষ মেয়র পদে সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন- চাঁদপুর পৌর বিএনপির সভাপতি আক্তার হোসেন মাঝি, জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী মোশারফ হোসেন, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাজী মোহাম্মদ ইব্রাহীম জুয়েল ও সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাহজালাল মিশন।

আর পড়তে পারেন