রবিবার, ২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সন্দেহ নিশ্চিত হলে ৭৬টি মসজিদ বন্ধ করে দেবে ফ্রান্স

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ডিসেম্বর ৪, ২০২০
news-image

 

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

নিজেদের বর্ণনা অনুযায়ী ধর্মীয় উগ্রবাদ মোকাবিলার জন্য ব্যাপক এবং অভূতপূর্ব পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করছে ফ্রান্সের সরকার। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী জেরাল্ড দারমানিন জানিয়েছেন, বিচ্ছিন্নতাবাদের জন্য ৭৬টি মসজিদকে সন্দেহভাজন বলে মনে করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার এক ঘোষণায় তিনি জানান, এসব মসজিদ নিয়ে তদন্ত হবে। আর তদন্তে সন্দেহ নিশ্চিত হলে সেগুলো বন্ধ করে দিতে বলা হবে। এছাড়া উগ্রবাদে সন্দেহভাজন ৬৬ জন অনিবন্ধিত শরণার্থীকে ফেরত পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) একটি কার্টুন প্রদর্শনের জেরে এক শিক্ষককে হত্যার পর থেকেই উত্তপ্ত হয়ে আছে ফ্রান্স। গত কয়েক সপ্তাহের মধ্যে দেশটিতে আরও কয়েকটি প্রাণঘাতী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এসব হামলার জন্য ইসলামী উগ্রবাদকে দায়ী করছে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রোর সরকার। আর তা মোকাবিলায় নানা পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী জেরাল্ড দারমানিন বলেছেন শত্রুরা নিজেদের মধ্যেই রয়েছে। গত ২০ অক্টোবর প্যারিসের বাইরের মসজিদ সাময়িকভাবে বন্ধের নির্দেশ দেয় ফ্রান্স। ঘৃণা ছড়ানোয় সন্দেহভাজনদের বিরুদ্ধে অভিযানের অংশ হিসেবে এই নির্দেশ দেওয়া হয়।

এছাড়া ইতোমধ্যে দুইটি সংগঠন বন্ধ করে দিয়েছে ফ্রান্স। মুসলিম দাতব্য বারাকা সিটি এবং সংখ্যালঘুদের ওপর ঘৃণাবাদী অপরাধ পর্যবেক্ষণকারী নাগরিক অধিকার গ্রুপ কালেক্টিভ এগেইনেস্ট ইসলামোফোবিয়া ইন ফ্রান্স বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এদের বিরুদ্ধে উগ্রবাদ সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ রয়েছে বলে দাবি ফরাসি সরকারের।

আর পড়তে পারেন