শুক্রবার, ২২শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

লাকসাম রেলওয়ে জংশনে মাস্টারের বিরুদ্ধে টিকেট কালোবাজারীসহ নানা অভিযোগ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
news-image

স্টাফ রিপোর্টারঃ
বাংলাদেশ রেলওয়ের পূর্বাঞ্চলীয় প্রবেশদ্বার খ্যাত ঐতিহ্যবাহী লাকসাম জংশনের ষ্টেশন মাস্টারের বিরুদ্ধে টিকেট কালোবাজারীসহ নানা অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগীরা বাংলাদেশ রেলওয়ের পূর্বাঞ্চলীয় মহা-ব্যবস্থাপক বরাবর একটি অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয় যে, গত ৭ই আগস্ট বিকেল ৪টায় লাকসাম জংশন হতে চট্টগ্রামে যাওয়ার জন্যে মেঘনা ট্রেনের আগাম টিকেট ক্রয় করতে গেলে বুকিং কাউন্টারে টিকেট নেই জানিয়ে ষ্টেশন মাষ্টারের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন। ষ্টেশন মাষ্টারের সাথে দেখা করলে তিনি কর্কট ভাষায় কথা বলেন। পরবর্তীতে ১৩ই আগস্ট সকাল সাড়ে ৬টায় বুকিং কাউন্টারে গিয়ে দেখা যায়, ২০০ টাকা নিয়ে সিট দিয়ে ওইদিনের টিকেট বিক্রি করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে বুকিং কাউন্টারকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান, এসব স্টেশন মাস্টারের নির্দেশে করা হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রতিটি আন্তঃনগর ট্রেনের টিকেট বিক্রি ঘোষণার ১০ মিনিটের মধ্যে কালোবাজারীদের হাতে চলে যায়। পরবর্তীতে তা অধিক মূল্যে যাত্রীদের নিকট বিক্রি করা হয়। এছাড়া, এ ষ্টেশনে মাসিক পেনশনভোগীদের কাছ থেকে ২-৩শ’ টাকা আদায় করার অভিযোগ রয়েছে।

জনগনের ভোগান্তি লাঘবে বিষয়টি বিবেচনার জন্য ভুক্তভোগীরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু দৃষ্টি কামনা করেন।
অভিযোগের বিষয়ে লাকসাম রেলওয়ে জংশনের স্টেশন মাস্টার কামরুল হাসান তালুকদার বলেন, অভিযোগগুলো ভিত্তিহীন। কোন যাত্রী বা স্টাফ সমস্যায় পড়লে আমি নিজে গিয়ে তা সমাধানের চেষ্টা করি। কেউ আমার প্রতি জেলাছ হয়ে এসব অভিযোগ করেছে।

আর পড়তে পারেন