শনিবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

লাকসামে অভিযান পরিচালনাকালে কাস্টমসের দুই মহিলাসহ ৯ জন লাঞ্চিত

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুন ১২, ২০১৭
news-image

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ

কুমিল্লার লাকসাম উপজেলায় পৌর শহরের ফায়ার সার্ভিস সংলগ্ন রাসেল ষ্টোরে অভিযান পরিচালনাকালে জেলা কাষ্টমসের দুই মহিলা কর্মকর্তাসহ ৯ জনকে গণধোলাই দিয়েছে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

সোমবার (১২ জুন) বিকেলে এ অভিযান পরিচালনাকালে এ হামলার শিকার হন ।

স্থানীয় সূত্র জানান, উপজেলা পৌর শহরে রাসেল ষ্টোরের গুদামে অবৈধ ভারতীয় মসল্লা পণ্য মজুত আছে এ তথ্যের ভিত্তিতে জেলা কাষ্টমস কর্মকর্তারা বিকেলে ওই প্রতিষ্ঠানের গুদামে অভিযান পরিচালনা করেন। ওই সময় প্রতিষ্ঠানের মালিকের ছেলে রাসেল ও তার সাথের লোকজনের সাথে কাস্টমস কর্মকর্তাদের কথা কাটাকাটি হয়। পরে দোকানের লোকজন উত্তেজিত হয়ে দুই মহিলা কর্মকর্তাসহ ৯ জনকে মারধর করে।

জেলা কাষ্টমস রাজস্ব কর্মকর্তা শরমিস্তা রায় জানান, বিপুল পরিমান অবৈধ ভারতীয় মসল্লা পন্যে মওজুদ রয়েছে, এই সংবাদের ভিত্তিতে আমরা অভিযান পরিচালনা করতে গেলে ওই প্রতিষ্ঠানের মালিক আশেপাশের লোকজন ডেকে এনে আমাদের উপর হামলা চালায়। আমরা সবাই আমাদের আইডি কার্ড দেখার পরও আমাদের ৯ জন কর্মকর্তার উপর অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে গুরুতর জখম করে। পাশাপাশি নারী কর্মকর্তাদের শ্লীলতাহানী করে এবং সাথে থাকা মোবাইল ফোন ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়। খবর শুনে লাকসাম থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আমাদেরকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় আমরা থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছি।

এ দিকে রাসেল ষ্টোরের মালিকের ছেলে রাসেল জানান, ওইদিন বিকালে কাষ্টমস কর্মকর্তারা আমার গুদামে অভিযান চালাতে এলে সন্দেহ হলে তাদের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আমার গুদামে রক্ষিত মালামালগুলো জব্দ করার কথা বললে, আশে পাশের লোকজন তাদেরকে ভূয়া কাষ্টমস কর্মকর্তা সন্দেহে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ তাদেরকে থানায় নিয়ে যায়।

লাকসাম থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক প্রতুল চন্দ্র শীল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আর পড়তে পারেন