শুক্রবার, ২২শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

মেসির জোড়া গোলে কোয়ার্টারে বার্সা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মার্চ ১৫, ২০১৮
news-image

 

স্পোর্টস ডেস্কঃ

ইংলিশ জায়ান্ট চেলসিকে ৩-০ গোলে হারিয়ে দুই লেগ মিলিয়ে ৪-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বার্সেলোনা।

ম্যাচটি ছিলো মেসিময়। ক্যারিয়ারে নিজের দ্রুততম গোল করে মাত্র ২ মিনিট ৮ সেকেন্ডে কাতালানদের এগিয়ে নেন আর্জেন্টাইন জাদুকর। এরপর ম্যাচের ২০ মিনিটে ওসমান দেম্বেলেকে দিয়ে করান আরো একটি গোল।

মেসি নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচের ৬৩ মিনিটে। এ ম্যাচে গোল পাননি মেসির সঙ্গে আক্রমণভাগের ত্রাস লুই সুয়ারেজ। নিজে গোল না পেলেও মেসির দুই গোলে অ্যাসিস্ট করেছেন উরুগুয়ের স্ট্রাইকার।

স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে প্রথম লেগে ১-১ গোলের সমতা নিয়ে ক্যাম্প ন্যুয়ে খেলতে নামে বার্সেলোনা-চেলসি। প্রথম লেগে দুর্দান্ত খেলা চেলসি ম্যাচের শেষ পর্যন্ত এক গোলে এগিয়ে থেকেও ডিফেন্ডারের ভুলে গোল হজম করতে বাধ্য হয়। প্রতিপক্ষের ভুলের সুযোগ নিয়ে ম্যাচের শেষ দিকে গোল করে দলকে সমতায় ফিরিয়েছিলেন লিওনেল মেসি।

ফিরতি লেগ যেন মেসি সেখান থেকেই শুরু করেন আবার! ম্যাচের তৃতীয় মিনিটে সুয়ারেজের ফিরতি পাস পেয়ে বাইলাইনের কাছ থেকে ডান পায়ে শট নেন মেসি। বল গোলরক্ষকের দুপায়ের মাঝ দিয়ে চলে যায় জালে।

প্রথম গোল হজমের পর গুছিয়ে ওঠে চেলসি, পাল্টা আক্রমণে বার্সার রক্ষণভাগ বেশ কয়েকবার কাঁপিয়ে তুলেছিলেন হ্যাজার্ড-উইলিয়ানরা। ম্যাচের ১২ মিনিটে দূরপাল্লার শটে বার্সেলোনা গোলরক্ষকের প্রথম পরীক্ষা নেন উইলিয়ান। সতর্ক টের স্টেগান দারুণ ক্ষিপ্রতায় সেই শট প্রতিহত করেন। এরপর ম্যাচের ২০ মিনিটে বার্সেলোনার হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নিজের প্রথম গোল তুলে নেন ফরাসি স্ট্রাইকার দেম্বেলে।

বিরতিতে যাওয়ার আগে ব্যবধান কমানোর সুযোগ পেয়েছি চেলসি। তবে তা প্রথম লেগের মতোই ব্যর্থ হয়েছে পোস্টে লেগে। প্রথম লেগের মতো ফিরতি লেগেও চেলসির দুই দুটি আক্রমণ বারপোস্টে লেগে ফিরে আসে। আর ক্যাম্প ন্যুয়ের ম্যাচের তো চেলসির কোচ ও খেলোয়াড়দের একটি জোরালো পেনাল্টির আবেদন রেফারি নাকচ করে দিলে হতাশ পোড়েন চেলসি সমর্থকরা।

দুই গোল হজম করা চেলসির কফিনে ম্যাচের ৬৩তম মিনিটে শেষ পেরেক ঠুকে দেন মেসি। সুয়ারেজের কাছ থেকে ডি-বক্সে বাঁ পাশ দিয়ে কোনাকুনি শটে আবার কর্তোয়ার দুই পায়ের ফাঁক দিয়ে বল জালে পাঠান মেসি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের চলতি সিজনে এটা তার ৬ষ্ঠ গোল। এই গোলের মধ্য দিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজের শততম গোল উদযাপন করেন মেসি।

আর পড়তে পারেন