সোমবার, ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

মুরাদনগরে সা’দ পন্থীদের ইজতেমার অনুমতি দেয়নি প্রশাসন

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুন ১৯, ২০১৯
news-image

 

মাহবুব আলম আরিফ.মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি.
কুমিল্লার মুরাদনগরে তাবলীগ জামাতের সা’দপন্থীদের জেলা ইজতেমা প্রশাসনের অনুমতি না পাওয়ায় বন্ধ হয়ে গেছে। তাবলীগ জামাতের দুই গ্রুপের (যোবায়ের গ্রুপ-সা’দ গ্রুপ) মুখোমুখি অবস্থানকে কেন্দ্র করে এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিবেচনা করে ইজতেমা বাতিল করেছে কুমিল্লা জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর।

মঙ্গলবার রাতে উর্ধতন কতৃপক্ষের নির্দেশনা মোতাবেক তিনি এই আদেশ দেন। এলাকায় বড় ধরনের সংঘর্ষের আশঙ্কায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। জানা যায়, তাবলীগ জামাতের সাদপন্থীরা কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাখরনগর এলাকায় তিন দিনব্যাপী জেলা ইজতেমার আহবান করে। উক্ত স্থানে সাদ পন্থীদের কে ইজতেমা করতে এবং বিভ্রান্তীর সৃষ্টি না করার জন্য দাবি জানায় তাবলীগ জামাতের অপর গ্রুপ জুবায়েরপন্থীরা। সাদপন্থীদের ইজতেমা বন্ধের দাবিতে মঙ্গলবার জুবায়ের পন্থীরা উপজেলায় বিভিন্ন সড়কে বিক্ষোভ মিছিল সড়ক অবরোধ করে। এ সময় জুবায়েরপন্থীরা জেলা প্রশাসকের নিকট স্মারকলিপি প্রদান করে। তাবলীগ জামাতের বিরাজমান দুটি গ্রুপের বিবেক এবং দ্বন্ধ এবং চলমান উত্তেজনা দেখে প্রশাসন সা’দপন্থীদের জেলা ইজতেমার অনুমোদন দেয়নি। পরে সাদ পন্থীরা উক্ত স্থানে সমবেত হওয়ার চেষ্টা করে।

অপরদিকে ওই ইজতেমা প্রতিহত করতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করে জুবায়েরপন্থীরা। এ ঘটনায় যেকোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে এবং আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বজায় রাখতে সেখানে প্রায় দুই শতাধিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়। মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মনজুর আলম বলেন, ইজতেমা মাঠে বিপুল পরিমান পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। যেকোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ২২শে মে পর্যন্ত সেখানে অবস্থান করবে।

আর পড়তে পারেন