মঙ্গলবার, ২১শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং

মুরাদনগরে গোমতী নদীতে ডুবে নিখোঁজের দুদিন পর মাঝির মরদেহ উদ্ধার

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ডিসেম্বর ৫, ২০১৯
news-image

 

ডেস্ক রিপোর্টঃ

কুমিল্লার মুরাদনগরে গোমতী নদীতে ডুবে নিখোঁজ হওয়ার দুদিন পর সাদ্দাম হোসেন (৩০) নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে । বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার জাহাপুর ইউনিয়নের সাতমোড়া গ্রামের গোদারাঘাট এলাকা থেকে এই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

নি হত সাদ্দাম হোসেন চট্টগ্রাম জেলার মিরসরাই উপজেলার রহমতাবাদ গ্রামের মৃত জেবাল হকের ছেলে এবং সে ট্রলারের মাঝি ছিলেন বলে জানা গেছে।

জানা যায়, মাঝি সাদ্দাম হোসেন জেলার দাউদকান্দি থেকে বালুবাহী ট্রলার নিয়ে গোমতী নদী দিয়ে উপজেলার কোম্পানীগঞ্জে বালু নামিয়ে দাউদকান্দি ফেরার পথে সোমবার রাত ৮টা ৪৫মিনিটে জাহাপুর ইউনিয়নের সাতমোড়া গোদারাঘাটে নৌকা পারাপারের জন্য বেঁধে রাখা রশিতে আটকে চলন্ত ট্রলার থেকে নদীতে পড়ে গিয়ে নি খোঁজ হয়।

ট্রলারে থাকা শ্রমিকরা ঘটনাটি টের পেয়ে অনেক খোঁজাখুজি করেও তার কোন সন্ধান পায়নি। বুধবার মুরাদনগর ফায়ার সার্ভিস কতৃপক্ষ চাঁদপুর থেকে ডুবুরি দল এনে ঘটনাস্থলে উদ্ধার অভিযান চালায়। চার সদস্যের ডুবুরিদল ২ঘন্টা অভিযান চালিয়ে নিখোঁজ মাঝি সাদ্দাম হোসেনের মরদেহ উদ্ধার করে।

নি হতের বড় ভাই আনোয়ার হোসেন বলেন, আমার ছোট ভাই সাদ্দাম ৫ বছর ধরে বালুর ট্রলারে কাজ করে। তার সাড়ে তিন বছর ও দেড় বছরের দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বর্তমানে তার স্ত্রী ৭মাসের অন্তঃসত্তা। আগামী ১০ তারিখ তার বাড়ি যাওয়ার কথা ছিলো কিন্তু তার আগেই আমার ভাই সবাইকে কাঁদিয়ে তার আসল বাড়িতে চলে গেলো।

এ ব্যাপারে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মনজুর আলম বলেন, নি হতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য কুমেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হবে। এ ঘটনায় দন্ডবিধির ২৮০ ধারায় নৌ দুঘটনার মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আর পড়তে পারেন