মঙ্গলবার, ৭ই জুলাই, ২০২০ ইং

মায়ের দেওয়া ৭০ টাকা নিয়েই প্রথম ঢাকায় আসেন সালাম মুর্শেদী

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ডিসেম্বর ২, ২০১৯
news-image

 

কালাম আঝাদঃ

সালাম মুর্শেদী আপাদমস্তক একজন ভদ্রলোক,বিনয়ীও বটে। অনেক কাঠখর পোড়ানোর পর প্রায় বছরখানেক পর দেখা মিলল তাঁর। শত ব্যস্ততার মাঝেও বুধবার (২৭ নভেম্বর) রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালের ঠিক উল্টো পাশে এনভয় গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ের পঞ্চম তলায় এ প্রতিবেদককে সাক্ষাৎ দেন তিনি। গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তিনি। মুর্শেদীর বড় পরিচয় তিনি বাংলাদেশের জাতীয় ফুটবল দলের একজন তারকা খেলোয়াড়। বর্তমানে ক্রীড়ামোদী। এ উদ্যোক্তা ব্যবসায়ীর বড় পরিচয় তিনি বর্তমানে একজন জনপ্রতিনিধি। ২০০৮ সালে খুলনা-৪ আসনে উপনির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাংসদ নির্বাচিত হন। বর্তমানে মুর্শেদী বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) জৈষ্ঠ্য সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সাবেক সভাপতি ও এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ইএবি) সভাপতি।

সাক্ষাৎকারের শুরুতে ব্যক্তিগত সহকারীর দেওয়া বেশকিছু ফাইল স্বাক্ষর করতে করতে বলেন- ‘আপনি বলতে থাকুন, এরমধ্যেই আপনার সঙ্গে কথা বলতে হবে।’

সাক্ষাৎকারের শুরুতেই প্রশ্ন করলাম- ‘সাংসদ হিসেবে এ পর্যন্ত এলাকার জন্য কী কী করেছেন? উল্লেখযোগ্য আর কী করার ইচ্ছে আছে?’ -এমন প্রশ্নের জবাবে সালাম মুর্শেদী জানালেন, এলাকার রাস্তাঘাট, বিদ্যুৎ, খেলার মাঠ ও কর্মসংস্থানের দিকে তিনি বেশি নজর দিয়েছেন। জানালেন, এলাকাকে মাদকমুক্ত করার সঙ্গে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জোর নজর দেওয়া কাজগুলো তিনি সম্পন্ন করছেন। একইসঙ্গে তরুণ সমাজের চাকুরির পাশাপাশি উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতেও কাজ করছেন।

‘সংসদে ব্যবসায়ীদের অংশগ্রহণ বাড়ছে। বিষয়টিকে কীভাবে মূল্যায়ন করবেন?’- এমন প্রশ্নে অস্তিবাচক (পজেটিভ) দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরেন মুর্শেদী।

উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে উঠার জন্য কী করা উচিত?- এমন প্রশ্নের জবাবে সালাম মুর্শেদী বলেন- ‘দেখুন, আমি আমার মায়ের কাছ থেকে মাত্র ৭০ টাকা নিয়ে ঢাকায় এসেছিলাম। পরে ফুটবল খেলে মাত্র ৮-১০ লাখ টাকার মতো নিয়ে আমি ব্যবসা শুরু করি। বর্তমানে আমি স্কয়ার হসপিটাল, ব্যাংক ও বেশকিছু প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত আছি।’

সালাম মুর্শেদী বলেন, একজন উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে উঠার জন্য প্রচণ্ড মনোবল ও আকাঙ্ক্ষা এবং তীব্র পরিশ্রম প্রয়োজন।

বর্তমান আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকার চাকুরির চেয়ে উদ্যোক্তা তৈরিতে বেশি নজর দিচ্ছে উল্লেখ করে সালাম মুর্শেদী বলেন, তরুণদের চাকুরির পেছনে না ঘুরে চাকুরিদাতা হতে হবে।

আড্ডার ছলে সাক্ষাৎকার প্রদানকালে সালাম মুর্শেদী জানান, দেশের ক্রীড়াঙ্গনের জন্য বর্তমান সরকার বিপুল কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের খেলোয়াড়দের এর সম্মান দিতে হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে সালাম মুর্শেদী জানান, লবণ-পেঁয়াজ নিয়ে যাঁরা কারসাজি করেছেন, তারা দেশপ্রেমিক নন।

‘একজন ভালো রাজনীতিক হওয়ার জন্য কী কী গুণ থাকা প্রয়োজন?’- এ প্রশ্নে সালাম মুর্শেদী বলেন, একজন ভালো মানুষ ও দেশপ্রেমিক হওয়ার বিকল্প নেই।

উল্লেখ করা যেতে পারে, ২০১৪ সালে বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ (সিআইপি) হিসেবে নির্বাচিত হন সালাম মুর্শেদী।

আর পড়তে পারেন