বুধবার, ৫ আগস্ট, ২০২০

ভারতের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নে বিএনপির তদবির।। অর্থ সহায়তা বন্ধের হুমকি পাকিস্তানের

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুন ২২, ২০১৮
news-image

 

নিউজ ডেস্ক:

ভারতের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নে বিএনপির চেষ্টা-তদবিরে প্রেক্ষিতে বিএনপিকে অর্থ সহায়তা বন্ধের হুমকি দিয়েছে পাকিস্তান। জামায়াতের শীর্ষস্থানীয় একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে এই তথ্য পাওয়া গেছে। তারা বলছেন, বাংলাদেশে-পাকিস্তানের স্বার্থ এবং মুসলিম উম্মাহর প্রতি আনুগত্যের জন্য বিএনপির সৃষ্টি। এজন্যই বিএনপি রাজনীতিতে জামায়াতের সমর্থন পায়। কিন্তু বিএনপি যদি ‘ভারত তোষণ’ নীতি গ্রহণ করে সেক্ষেত্রে বিএনপি আর বিএনপি থাকবে না। ভারত নিয়ে বিএনপির অবস্থানে ক্ষুব্ধ জামায়াতে ইসলামী তথা পাকিস্তানও।

জানা গেছে, বিএনপি সব নির্বাচনে পাকিস্তান থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ সহায়তা পায়। ২০ দলীয় জোটে বিএনপির প্রধান মিত্র জামায়াতে ইসলামীর দাবি, গোলাম আযম এবং মতিউর রহমান নিজামী বিএনপিকে নির্বাচনী তহবিলের জন্য অর্থ পেতে সহায়তা করেছিল। এখনো বিএনপি দল পরিচালনার জন্য অর্থ সহায়তা পায়। কিন্তু বিএনপি যদি ভারতের সঙ্গে সমঝোতা করে, সেক্ষেত্রে পাকিস্তান ওই অর্থ প্রবাহ বন্ধ করে দেবে। আর তাতে জামায়াতের শীর্ষ নেতাদের সম্পূর্ণ সম্মতি রয়েছে।

এ প্রসঙ্গে জামায়াতে ইসলামীর একজন নেতা বলেন, ভারতের আগ্রাসনবাদের বিরুদ্ধেই জামায়াতের রাজনীতি। আর পাকিস্তানের ইশারায় বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর স্তম্ভ দাঁড়িয়ে। যেহেতু ভারত একটি হিন্দু প্রধান দেশ তাই তাদের সঙ্গে কোনোভাবেই সম্পর্ক চলে না। এখন বিএনপি যদি ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে চায় সেটা পাকিস্তান তথা জামায়াতে ইসলামী মেনে নিতে পারে না। অর্থ সহায়তা বন্ধের ঘোষণাতেও বিএনপির যদি হুশ না ফেরে তবে এর বড় খেসারত দিতে হবে দলটিকে। জামায়াতের অধিকাংশ নেতাই ধারণা করছেন, তারেক রহমান ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’ এর খপ্পড়ে পড়ে এই সমঝোতার উদ্যোগ নিয়েছে।

জামায়াতের এমন অবস্থান নিয়ে বিএনপির একাধিক নেতার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে, তারা অর্থ সহায়তার বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন। তবে তারা মনে করছেন, সরকার এখন জামায়াতকে বিএনপির বিরুদ্ধে ব্যবহার করছে। কেননা, সিটি নির্বাচন নিয়ে জামায়াতের অতিউৎসাহ এবং বিএনপির বিরুদ্ধাচরণ তাই প্রমাণ করে।

সূত্র ঃ বাংলা নিউজ পোষ্ট

আর পড়তে পারেন