বৃহস্পতিবার, ১৩ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে এবার ব্রাজিলের বিপক্ষে মাঠে নামছে মেসি

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
নভেম্বর ১, ২০১৯
news-image

 

স্পোর্টস ডেস্কঃ

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে চলতি মাসেই আর্জেন্টিনা দলে ফিরছেন লিওনেল মেসি। এর মধ্যে দলেও ডাক পেয়েছেন তিনি

লিওনেল মেসির ওপর কনমেবলের দেওয়া নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ অবশেষে শেষ হচ্ছে। আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনিও সুযোগ বুঝে দলে ডেকেছেন অধিনায়ক মেসিকে। ১৫ নভেম্বর সৌদি আরবে ব্রাজিলের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া প্রীতি ম্যাচেই ফিরছেন মেসি। এরপর ১৮ নভেম্বর ইসরায়েলে উরুগুয়ের বিপক্ষে আরেকটি প্রীতি ম্যাচ খেলবে আর্জেন্টিনা। সে ম্যাচের দলেও আছেন মেসি। এ দুই ম্যাচের জন্য মেসি ছাড়াও জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন সার্জিও আগুয়েরোও।

দক্ষিণ আমেরিকা ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থাকে (কনমেবল) ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ বলার জন্য আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন লিওনেল মেসি। এ ছাড়া তাঁকে ৫০ হাজার ডলার জরিমানা করা হয়েছিল। শাস্তির বিপক্ষে আপিল করেও লাভ হয়নি। গত কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে ব্রাজিলের কাছে হার ও তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে চিলির বিপক্ষে জয়ের পর কনমেবল কর্তাব্যক্তি ও সদস্যদের তুমুল সমালোচনা করেছিলেন মেসি।

বার্সেলোনা তারকা দাবি করেছিলেন, স্বাগতিক ব্রাজিলের হাতে শিরোপা তুলে দেওয়ার সম্ভাব্য সব রকম চেষ্টাই করছে কনমেবল। আর সেমির পর এসব কথা বলেছিলেন দেখে পরের ম্যাচে (চিলির বিপক্ষে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী) লাল কার্ড দেখানো হয়েছে—এমন দাবিও করেছিলেন পাঁচবারের বর্ষসেরা এ ফুটবলার। পরে অবশ্য নিজ আচরণের জন্য ক্ষমাও চেয়েছিলেন মেসি।

আর্জেন্টিনা স্কোয়াড:

গোলরক্ষক: অগাস্টিন মার্চেসিন (এফসি পোর্তো), হুয়ান মুসো (উদিনেসে), এমিলিয়ানো মার্টিনেজ (আর্সেনাল), এস্তেবান আনদ্রাদা (বোকা জুনিয়র্স)। রক্ষণভাগ: হুয়ান ফয়থ (টটেনহাম হটস্পার), রেনজো সারাভিয়া (এফসি পোর্তো), নিকোলাস ওটামেন্ডি (ম্যানচেস্টার সিটি), জার্মান পেজ্জালা (ফিওরেন্টিনা), মার্কোস রোহো (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), ওয়াল্টার কানেমান (গ্রেমিও), নিকোলাস তাগলিয়াফিকো (আয়াক্স), নেহুয়েন পেরেজ (ফ্যামালিকাও)। মাঝমাঠ: গিদো রদ্রিগেজ (ক্লাব আমেরিকা), জিওভান্নি লো চেলসো (টটেনহাম হটস্পার), লিয়ান্দ্রো পারেদেস (পিএসজি), নিকোলাস ডমিঙ্গেজ (ভেলেজ সার্সফেল্ড), রদ্রিগো দে পল (উদিনেসে), মার্কোস আকুনিয়া (স্পোর্টিং লিসবন), রবার্তো পেরেইরা (ওয়াটফোর্ড), লুকাস ওকাম্পোস (সেভিয়া)। আক্রমণভাগ: লিওনেল মেসি (বার্সেলোনা), সার্জিও আগুয়েরো (ম্যানচেস্টার সিটি), নিকোলাস গঞ্জালেস (ভিএফবি স্টুটগার্ট), লুকাস আলারিও (বেয়ার লেভারকুসেন), লওতারো মার্টিনেজ (ইন্টার মিলান), পাওলো দিবালা (জুভেন্টাস)

আর পড়তে পারেন