সোমবার, ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

নবীনগর পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী হয়ে আলোচিত হলেন এক বৃদ্ধা!

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯
news-image

 

মো. দেলোয়ার হোসেন, নবীনগর ঃ
বয়সের ভারে নুয়ে পড়লেও মনের জোরে এগিয়ে যাচ্ছেন ৬৬ বছরের সালেহা বেগম। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌরসভার আসন্ন নির্বাচনে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে প্রার্থী হয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। গতকাল রবিবার মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দিনে ছালেহা বেগম নামের ওই বৃদ্ধার মনোনয়নপত্রটি ‘বৈধ’ ঘোষণা হওয়ার পর তাকে নিয়ে এখন নির্বাচনী মাঠে নানা ধরনের আলোচনা চলছে।

জানা গেছে, নবীনগর পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের আলীয়াবাদ গ্রামের মৃত মিদন মিয়ার স্ত্রী ছালেহা বেগম। তিন ছেলে ও এক মেয়ের জননী এই ছালেহা বেগম দুই দশক আগে একবার উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত ওয়ার্ডের সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। আর এবার তিনি নবীনগর পৌরসভা নির্বাচনে ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করতে যাচ্ছেন। ছালেহা বেগমের তিন ছেলের একজন প্রবাসে থাকলেও বড় দুই ছেলে বাড়িতেই কৃষিকাজ করেন। আর একমাত্র মেয়ে শ্বশুর বাড়িতে থাকেন। বৃদ্ধা ছালেহা বড় ছেলের সাথেই বসবাস করেন।

আজ সোমবার সকালে আবু শামা নামের একজন প্রতিবেশী বলেন, ‘ইউপি নির্বাচনে সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর তিনি নবীনগর পৌরসভায়ও ‘কমিশনার’ হিসেবে এক যুগের বেশী সময় দায়িত্ব পালন করেছেন। কিন্তু এখন কিছুটা মানসিকভাবে অসুস্থ। এরপরও তিনি এই বয়সে এসে আবার নির্বাচনে কেন দাঁড়ালেন, বুঝতে পারছি না।’

তবে প্রার্থী ছালেহা বেগম বলেন,‘নির্বাচনে বয়সডা কুনু বিষয় না। কাজ করাডাই হইল আসল কথা। আগেও মেম্বার হইয়া কাজ করছি। ইনশাল্লাহ এবারও নির্বাচনে ‘পাশ’ করলে এলাকার উন্নয়নে কাজ করমু। সবাই দোয়া কইরেন।’

আজ দুপুরে এ ব্যাপারে নবীনগর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও পৌরসভা নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম আজকের কুমিল্লাকে বলেন, ‘রবিবার বাছাই শেষে ওই বৃদ্ধার মনোনয়নপত্রটি বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। এখন তিনি নির্বাচনের একজন বৈধ প্রার্থী। আর নির্বাচনী আইন অনুযায়ী ২৫ বছরের ঊর্ধ্বে যে কেউ নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারেন।’

প্রসঙ্গত, আগামী ২২ সেপ্টেম্বর নবীনগর পৌরসভা নির্বাচনের প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। এরপরই ২৩ সেপ্টেম্বর বৈধ প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে। আর আগামী ১৪ অক্টোবর পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আর পড়তে পারেন