বৃহস্পতিবার, ২৪শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

দেশের প্রথম ওপেনসোর্স হিউম্যানয়েড রোবট তৈরি করলো ব্রিটানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯
news-image

স্টাফ রিপোর্টারঃ
হিউম্যানয়েড রোবট তৈরি করে তাক লাগিয়েছে কুমিল্লার ব্রিটানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দুই শিক্ষার্থী। এটি বাংলাদেশের প্রথম ওপেনসোর্স হিউম্যানয়েড রোবট বলে দাবি করেছেন তারা। রোবটটির নাম দেয়া হয়েছে MIA-1 (মিয়া-১)। মাত্র ৪০ হাজার টাকা ব্যয়ে অত্যাধুনিক রোবটটি তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে তারা। রোবটটি তৈরিতে সময় লেগেছে আড়াই মাস। রোবটটি অনেকটা মানুষাকৃতির। সেটির ডিজাইনও ইউনিক। যা মানুষের মতোই দাড়িয়ে থাকতে পারে। সেটাকে পরিচালনার জন্য আলাদা স্মার্টফোন ব্যবহার করে কমান্ড দেয়া লাগে না।

বেসরকারি ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী আশরাফুর রহমান মিনহাজ এবং তৃতীয় বর্ষের ২য় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী মাহমুদা আফরীন রোবটটি তৈরি করেছেন। তাদের দুজনের মধ্যে টিম লিডার ছিলেন আশরাফুর রহমান মিনহাজ। তাদের মেন্টর ছিলেন ওই বিভাগের প্রভাষক মাসুম বকাউল।

নির্মাতাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, রোবটটি ব্যবহারকারীর কথা শুনতে পারে এবং প্রতিউত্তর করতে পারে। রোবটের বুকে ৭ ইঞ্চি টাচ্ স্ক্রীন এলসিডি মনিটর রয়েছে যার মাধ্যমে একজন ইউজার সহজের রোবটটিকে কমান্ড করে তার কাছ থেকে তথ্য জেনে নিতে পারবে। রোবট মিয়া-১ মুখে কথা বলার পাশাপাশি তার এলসিডিতে সংশ্লিষ্ট ছবিও প্রদর্শন করবে। রোবটটির চোখে অত্যাধুনিক ক্যামেরা সংযুক্ত করা হয়েছে। যার মাধ্যমে এটি দেখতে পারবে। পাশাপাশি কম্পিউটার ভিশন টেকনোলজি ব্যবহার করে অবজেক্ট ডিটেকশন এন্ড রিকগনিশন ও মোশন সেন্স করতে পারে। রোবটের বুকে লাগানো এলসিডিতে আছে গ্রাফিক্যাল ইউজার ইন্টারফেস (GUI)। তাছাড়া, রোবটটি ইন্টারনেট থেকে তথ্য সংগ্রহ করে ইউজারকে সরবরাহ করতে পারবে।

রোবট নির্মাতা ও টিম লিডার আশরাফুর রহমান মিনহাজ বলেন, তারা ১২ জুলাই রোবট তৈরির কাজ শুরু করেন। ব্রিটানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক মাসুম বকাউলের অনুপ্রেরণায় এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. তোফায়েল আহমেদ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক সহযোগিতায় তারা রোবটটি বানাতে পেরেছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে বসেই তারা রোবট MIA-1  তৈরি করেছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের বেশিরভাগ মানুষ ও শিক্ষার্থী রোবটকে সায়েন্স ফিকশন মনে করেন। আসলে রোবট বানানো কঠিন কিছুনা। এটাকে সায়েন্স ফিকশন মনে করার কিছুই নেই। আমি MIA-1  কে ওপেন সোর্স করে দিবো। অর্থাৎ রোবটটির প্রোগ্রাম, ডিজাইন, পার্টস লিস্ট, জেনারেল পাবলিক লাইসেন্সে (GPL3+)  সবার জন্য উন্মোক্ত থাকবে। ভবিষ্যতে আমরা MIA-1  থেকে আরো অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে MIA-2  রোবট তৈরি করবো।

আর পড়তে পারেন