রবিবার, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং

চাঁদপুরের কৃতি সন্তান ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
নভেম্বর ১৬, ২০১৯
news-image

 

 

 

মাসুদ হোসেন, চাঁদপুর:

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের তৃতীয় জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে শনিবার (১৬ নভেম্বর)। ক্ষমতাসীন দলটির সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন- কৃষক লীগ ও শ্রমিক লীগের পর এবার স্বেচ্ছাসেবক লীগেও এসেছে নতুন নেতৃত্ব। ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হয়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও চাঁদপুরের কৃতি সন্তান মোঃ কামরুল হাসান রিপন। তার সহযোগী সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন তারিক সাঈদ। এছাড়াও আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি হয়েছেন নির্মল রঞ্জন গুহ এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন এ কে এম আফজালুর রহমান বাবু।

 

শনিবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে নতুন নেতৃত্বের নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এর আগে সকালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন ও স্বেচ্ছাসেবী শাখা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের তৃতীয় জাতীয় কাউন্সিল উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিকে কামরুল হাসান রিপন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি হওয়ায় শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন নিজ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল মামুন পাটওয়ারী।

চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫নং রামপুর ইউনিয়নের মনিহার গ্রামের কৃতি সন্তান কামরুল হাসান রিপন। তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ছিলেন। ক্লিন ইমেজের নেতৃত্বের জন্য ইতিমধ্যে কামরুল হাসান রিপন কেন্দ্রীয় পর্যায়ে সুনাম কুড়াতে সমর্থ হয়েছেন। চলতি ২০১৯ সালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই-এর সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন সাবেক এই ছাত্রনেতা।

রাজপথ কাঁপানো ছাত্রনেতা কামরুল হাসান রিপন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মেলনে নির্বাচন করে ৮শ’ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছিলেন। এর আগে তিনি রাজধানীর দনিয়া কলেজ ছাত্রলীগ শাখার সাবেক প্রচার সম্পাদক, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক (১৯৯৮-২০০২), বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি (২০০৩- ২০১০) বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি (২০০৬) পদে আসীন ছিলেন। ছাত্র রাজনীতি করতে গিয়ে সেসময় ৩ বার কারাবরণ করেছিলেন তিনি। তৎকালীন সময় আওয়ামী লীগ বিরোধী দল থাকাকালীন বিএনপি, জামাত রিপনের নামে ১৫টি মামলা দায়ের করে।

আর পড়তে পারেন