বৃহস্পতিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

গুজবের বলি হচ্ছে সমাজের নিরীহ মানুষ: চাঁদপুরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুলাই ৩১, ২০১৯
news-image

 

মাসুদ হোসেন, চাঁদপুর :
চাঁদপুর সদর উপজেলার ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী শাহতলী জিলানী চিশতী কলেজ, জিলানী চিশতী উচ্চ বিদ্যালয় ও উত্তর শাহতলী জোবাইদা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের যৌথ ব্যবস্থাপনায় ও চাঁদপুর জেলা পুলিশের আয়োজনে ছেলেধরা গুজব, ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ ও মাদক প্রতিরোধে গনসচেতনতামূলক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গতকাল ২৯জুলাই (সোমবার) দুপুর সাড়ে ১২টায় জিলানী চিশতী কলেজ মাঠে কলেজ গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান ও দৈনিক চাঁদপুর খবর পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও প্রকাশক সোহেল রুশদীর সভাপতিত্বে ও ২৯নং উত্তর শাহতলী যোবাইদা বালক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: আবুল কালাম আজাদের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান।
চাঁদপুরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান বক্তব্যে বলেন, ছেলে ধরা গুজবে তোমরা কান দিবেনা। যে কোন ধরনের গুজব তোমাদের চোখে পড়লে বা তোমাদের পাড়া-মহল্লায় এ ধরনের কোন বাক্য দৃষ্টি গোচর হলে সাথে সাথে পুলিশকে জানাবে। যদি তোমরা আমাদের জানাতে না পার তাহলে তোমাদের শিক্ষকদের জানাবে। শিক্ষকদের মাধ্যমে আমরা জানব। বর্তমান সরকারের আমলে দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে যাচ্ছে, আর তা বাধাগ্রস্থ করতে একটা কুচক্রীমহল এ গুজব ছড়াচ্ছে।

এ গুজবের বলি হচ্ছে সমাজের নিরীহ মানুষ। তাদের ছেলে ধরা সন্দেহে হত্যা করে আইন নিজের হাতে তুলে নিচ্ছে অনেকেই। তাই তোমরা এ ধরনের কিছু দেখলে আইন নিজের হাতে তুলে না নিয়ে আমাদের জানাবে। আমরা ব্যবস্থা গ্রহন করব।
তিনি আরও বলেন, পদ্মাসেতুতে কল্লা লাগবে, এ ধরনের কথা কোন অসৎ উদ্দেশ্যের ব্যক্তি দ্বারা সমাজ অস্থিতিশীল করার জন্য করছে। আমরা পুলিশ প্রশাসন তা হতে দেব না, যারা গুজব ছড়াচ্ছে তাদেরকে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির দেওয়া হবে। ছেলে ধরা গুজবকে আমরা প্রশ্রয় দেবনা। আমরা মাদক নিয়ন্ত্রনের ব্যাপারে কাজ করছি। মাদকের বিরুদ্ধে চাঁদপুর পুলিশ সুপার জিরো টলারেন্স ঘোষনা করেছেন। মাদক হচ্ছে একটি সামাজিক ব্যধি। তাই এ ব্যাধির দ্বারা সমাজ আক্রান্ত হতে দেওয়া যাবে না। মাদক একটা পরিবারকে শেষ করতে পারে। তোমাদের এলাকায় বা তোমাদের বাড়িতে যদি কেউ মাদক গ্রহন করে তাহলে সাথে সাথে আমাদের সরকারি নম্বরে জানাবে। আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যে ব্যবস্থা গ্রহন করব। মাদকের মতো আরেকটি সামাজিক ব্যাধি হচ্ছে বাল্যবিবাহ।

অল্প বয়সে বিবাহ হলে নানা রকম সমস্যার সৃষ্টি হয়। তোমাদের এলাকায় যদি বাল্যবিবাহ হয় তাহলে তা বন্ধ করে তাদেরকে আইনের আওতায় আনতে হবে। তোমরা যেখানেই শুনবে বাল্য বিবাহ হচ্ছে সাথে সাথে আমাদের জানাবে। আমরা সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে সবসময় কাজ করে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, সাংবাদিক সোহেল রুশদী পত্রিকায় নিউজ প্রকাশ করে আমাদের কাজে সহযোগিতা করে থাকে । আজকের এই সমাবেশ করার জন্য যে ফিল্ড তৈরি করে দেওয়ার জন্য কলেজ গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান সোহেল রুশদীকে ধন্যবাদ। সাংবাদিক সোহেল রুশদী শিক্ষার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখেন গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান ও দৈনিক চাঁদপুর খবর পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও প্রকাশক সোহেল রুশদী। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, আমরা আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যে কোন অনুষ্ঠানে ছেলে ধরা গুজব, মাদক, বাল্যবিবাহ ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কথা বলে থাকি। এর বার্তা এলাকার মানুষকে পৌছে দিয়েছি। ছেলে ধরা গুজব, মাদক, বাল্যবিবাহ ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আমাদের জেলা পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির এর নেতৃত্বে জেলা পুলিশ মহোদয় ব্যাপক কাজ করছেন। কল্লা কাটা একটা গুজব, এর মাধ্যমে দেশের উন্নয়নে বাধাগ্রস্ত করতে চায় একটা কুচক্রি মহল। তাই কেউ গুজবে বিশ্বাস করবেনা। আমরা আমাদের এলাকায় মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও বাল্যবিবাহ নিমূলে কাজ করে যাচ্ছি। এধরনের কোন কিছু তোমরা দেখলে সাথে সাথে আমাদের জানাবে । আমরা পুলিশ প্রশাসনের মাধ্যমে দ্রুত সময়ে ব্যবস্থা গ্রহন করব।

তিনি আরও বলেন, আজকের এই অনুষ্ঠানটি মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও বাল্যবিবাহ রোধে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে। তাই আমি ধন্যবাদ জানাই চাঁদপুর পুলিশ সুপার মহোদয়কে। এই সরকারের আমলে আমাদের এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। জিলানী চিশতী কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে বহুতলবিশিষ্ট একাডেমিক ভবন হয়েছে। তাই আমি ধন্যবাদ জানাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনিকে। আমি ছাত্র-ছাত্রীদেরকেও ধন্যবাদ জানাই তারা এতক্ষন সময় দেওয়ার জন্য।
সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো: নাসিম উদ্দিন। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, বাল্যবিবাহ, মাদক, সন্ত্রাস এগুলো থেকে তেমরা দূরে থাকবে। এ ধরনের ঘটনা কোথাও ঘটলে সাথে সাথে পুলিশকে জানাবে।

দেশের বিভিন্ন স্থানে সাধারন নিরীহ মানুষকে ছেলেধরা সন্দেহে মেরে ফেলেছে। কোথাও বাল্য বিবাহ ঘটলে পুলিশের জরুরী বিভাগের নম্বরে ফোন করে জানালে সাথে সাথে পুলিশ চলে আসবে। তোমরা স্কুল বা কলেজে আসতে যদি কোন বখাটে ছেলেরা ইভটিজিং করে তাহলে আমাদের চাঁদপুর মডেল থানার সরকারি নম্বরে ফোন করবে।
অনুষ্ঠানে অন্যান্য অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, শাহতলী কামিল মাদরাসর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ বিলাল হোসাইন, জিলানী চিশতী কলেজে অধ্যক্ষ মো: হারুন-অর রশিদ, জিলানী চিশতী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নেপাল চন্দ্র কর্মকার, উত্তর শাহতলী যোবাইদা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনির হোসেন, মধ্য শাহতলী কাদেরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা মেসা: তহমিনা আক্তার, ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের মহিলা মেম্বার ফিরোজা বেগম।

উপস্থিত ছিলেন জিলানী চিশতী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য মাওলানা আব্দুল হালিম গাজী, ৪নং ওয়ার্ড মেম্বার মো: সফিক কারী, ২৯নং উত্তর শাহতলী যোবাইদা বালক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য মো: আবুল কাশেম কারীসহ অন্যান্য গন্যমান্য বক্তিবর্গ ।

সমাবেশের শুরুতে প্রধান অতিথি চাঁদপুরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমানকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান কলেজ গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান ও দৈনিক চাঁদপুর খবর পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও প্রকাশক সোহেল রুশদীসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। সমাবেশ শেষে চাঁদপুরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে একটি বনার্ঢ র‌্যালী কলেজ ক্যাম্পাস পদক্ষিণ করে ।

আর পড়তে পারেন