মঙ্গলবার, ২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

কোনো জাদু-মন্ত্র নয়!! মাত্র একটি প্রেমপত্র দিয়ে পাগল করুন হাজারো মেয়েকে!

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৬

love

প্রিয়,

সাথী

আমি অজানা অসীম অশুণ্যতা অপুর্ণতা নিয়ে
জন্মেছি; এ আমার আহংকার নয়।আত্ন উপলব্দির
চেতনা লব্দ সহজ সত্যের সরল স্বীকারক্তি।এ আমার
ভালোবাসার উক্তি”
“পৃথিবীর কোন কিছুই সহজ নয়।সবই কঠিন।কারো মন
জয় করাটা হয়তোবা আর ও বেশি।তা নাহলে
কেনআমি যাকে এত ভালোবাসি তার মন পাব না?
কেনো সে নিজেকে সবসময় আঁড়াল করে রাখে?সে
কি জানে না সে আমার কান্নার সাথী,হাসির
সাথী।যাকে আমি দেখেছি শরতের হাজারো
কাশফুলের মাঝে।যার অবাধ্য চুলের ঝাপটায় আমার
মনে বসন্ত জাগে।আমি যে তাকে অনেক বেশি
ভালোবাসি”
“বিধাতার সৃষ্ট পদার্থে অনেক বেশি জটিলতা।
পাথরের বুক বেয়ে নির্ঝরের স্রোত বইছে;আবার
আমার মত হতভাগার বুকেও প্রেমের ফল্গুধারা
লুকিয়ে রেখেছে।আর সে যদি ভালোবাসাই সৃষ্টি
করল,তবে আলোর নিচে ছায়ার মত তার আঁড়ালে
নিরাশাকে কেন গোপন করে রাখল?এ অদ্ভুত হিসাব
আমি মিলাতে পারি না…
“যেদিন এই নিষ্ঠুর পৃথিবীর আর সবাই আমাকে ভুলে
যাবে,সেদিন অন্তত তোমার বুক ব্যথিয়ে উঠবে এই
পাগলটার পাগলামীর কথা মনে করে।অন্ততএইটুকু
সান্তনা নিয়ে যেতে পারব।এ কি কম সৌভাগ্য
আমার?সেদিন তোমার সবচেয়ে প্রিয় বন্ধুর চেয়েও
হয়তোবা বেশি করে মনে পড়বে এই দূরের বন্ধুটিকে।
” আমার চাওয়ার কিছু নেই।আমি পেয়েছি-তোমাকে।
আমার রক্তে,চোখের জলে।”
” আচ্ছা, ছোট্ট একটা প্রশ্ন করি?কাউকে
ভালোবাসা কি পাপ না অন্যায় না অপরাধ না
নিষেধ?আমি তোমাকে ভালোবাসি–তোমার
দৃষ্টিকোণ থেকে এটা কি?নিশ্চয় অন্যায়?পাপ ও
হতে পারে?তাই না?
” সত্যিই তো–তোমার সুন্দরে চরণ ছোঁয়ার যোগ্যতা
আমার নেই।আমার যে দু’হাত মাখা কালি।যে কালি
তোমার রাঙ্গা পায়ে লেগেছে,চোখের জলে তা
ধুয়ে দিতে চাই।”
” কথাগুলো তোমার সামনে দাঁড়িয়ে বলা উচিৎ ছিল।
কিন্তু আমি তোমার সামনে যেতে পারি না।বড্ড ভয়
লাগে।তোমাকে দেখলে অনেকটা এলোমেলো হয়ে
যাই।কথা বলার ভাষা হারিয়ে ফেলি।কেন এমনটা
হয় বুঝি না।এটাই বুঝি ভালোবাসা,এটাই বুঝি প্রেম।”
” আমার কপালটা সত্যি ই অনেক অদ্ভুত।যাকে এত
ভালোবাসি,সে আমাকে একদম ই দেখতে পারে না।
আচ্ছা,তুমি কেন ছেঁড়া কাগজের মত আমাকে
বারবার ছুঁড়ে ফেলে দিচ্ছ?”
” আমি যে সত্যি ই তোমাকে অনেক বেশি
ভালোবেসে ফেলেছি”

” একটা মেয়েকে কিভাবে প্রেম নিবেদন করতে
হয়সেটা আমার জানা নেই।তবে এটা জানি,আমি
তোমাকে অসম্ভব ভালোবাসি।আমার সুর্যের আলোর
মত নিরপেক্ষ।কিন্তু আমি তোমাকে তা বুঝাতে
পারি না।আমি যে এমনি।”
” তুমি কি একটি বার চিন্তা করে দেখেছ,কি আগ্রহে
এক স্বপ্নবাজ ছেলে ভীষণ মুগ্ধতায় সারাক্ষণ
তাকিয়ে থাকে…?”
” সত্যিই অনেক আজব এই পৃথিবী! আজব পৃথিবীর
মানুষগুলো!! আর সবচেয়ে বেশি আজব পৃথিবীর নারী
গুলো!!!”
” অদৃষ্টের বিড়ম্বনায় ভিক্ষে যদি কেউ কেউ
চাইতেই আসে,ভিক্ষে তাকে তুমি নাই বা দিলে
কিন্তু দূর দূর করে তাড়িয়ে দিয় না।পৃথিবীর কাছে
হয়তবা তুমি কেউ একজন;কিন্তু কারো কাছে হয়তবা
তুমি ই তার পৃথিবী”
” তোমরা মেয়েরা পৃথিবীর সব ছেলেদের একই রকম
মনে কর।কিন্তু পৃথিবীর সব ছেলে এক রকম নয়।কিছু
ব্যতিক্রম অবশ্যই আছে।তোমরা বিজ্ঞানে যুগে বাস
কর বলে পৃথিবির সব ছেলেদের তোমাদের কাছে
একই রকম মনে হয়।আচ্ছা,তোমাদের বিজ্ঞান কি
বলতে পারে এক ফোঁটা অশ্রু জলে কয় ফোঁটা রক্ত হয়.…..?”
ইতি–
কোন এক হতভাগা