সোমবার, ৪ আগস্ট, ২০২০

কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছে কুমিল্লা ময়নামতি জাদুঘরের কর্মকর্তা কর্মচারীগণ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মে ১১, ২০২০
news-image

 

খালিদ বিন নজরুল:

কুমিল্লায় কৃষকের ধান কেটে দিতে এগিয়ে এসেছে ময়নামতি জাদুঘরের কর্মকর্তা কর্মচারী গণ।

সোমবার সকালে ময়নামতি শালবন সংলগ্ন সালমানপুর গ্রামে তিন কৃষকের প্রায় তিনবিঘা জমির ধান কেটে দিয়েছেন কুমিল্লা জেলা প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের নিয়মিত অনিয়মিত কর্মীসহ প্রায় ২৫ জন কর্মকর্তা কর্মচারী।

ভোর ছয়টা থেকে বেলা পৌনে এগারোটা পর্যন্ত জমি থেকে ধান কেটে কৃষকের উঠানে পৌছে দিয়েছেন বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের প্রত্নতত্ব পরিচালক।

ময়নামতি এলাকার সালমানপুর গ্রামের কৃষক আব্দুল জলিল , আব্দুর রহমান এবং মাহবুবের জমির ধান পেকে থাকবার পরেও শ্রমিক সংকোটের কারনে কাটা সম্ভব হচ্ছিলো না ।

স্থানীয় তথ্য মতে কৃষি শ্রমিকের চাহিদা বেশি হওয়ায় এই মুহুর্তে একজন শ্রমিকের একদিনের মজুরির দর আটশত টাকার অধিক। ফলে কৃষক ধান চাষ করে এর খরচই তুলতে পারছেনা।

বৃদ্ধ কৃষক আব্দুর রহমানের স্ত্রী সহ প্রতিবেশি মহিলারাও ময়নামতি জাদুঘরের কর্মকর্তা কর্মচারীগনের এই উদ্যোগ দেখে আনন্দে অভিভুত হয়ে পড়েন। তারা জানান এতে তাদের কষ্ট অনেক লাঘব হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে প্রত্নতত্ব অধিদপ্তর চট্রগ্রাম ও সিলেট বিভাগের পরিচালক ডঃ মোঃ আতাউর রহমান জানান ,  যেহেতু চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কার্যালয়টি কুমিল্লায় অবস্থিত এখানে কুমিল্লা এলাকায় প্রচুর পরিমানে ধান চাষ হয় যা আমাদের নজরে এসেছে।

এখানের বেলতলী জলার আশে পাশে শত শত বিঘায় ধান চাষ হয়েছে যা কৃষক শ্রমিকের উচ্চ মুল্যের কারনে কাটতে পারছে না। কৃষকের সাহায্যে আমাদের ধান কাটা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

আর পড়তে পারেন