মঙ্গলবার, ২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

আমি সব ধর্মকে সম্মান করি, ধর্মের ভিত্তিতে মানুষকে বিভক্ত করানোতে বিশ্বাস করি না

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
আগস্ট ১৪, ২০১৯
news-image

 

কলকাতা ডেস্কঃ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ‘যারা আমার সমালোচনা করে এবং আমার ধর্মীয় পরিচয় নিয়ে প্রশ্ন তোলে, তাদের চেয়ে আমি সংস্কৃত ধর্মগ্রন্থ বেশি জানি। আমি একজন হিন্দু এবং আমি সব ধর্মকে সম্মান করি। আমি ধর্মের ভিত্তিতে মানুষকে বিভক্ত করানোতে বিশ্বাস করি না।’

মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গে একটি জাদুঘর উদ্বোধন করতে গিয়ে এ কথা বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ খবর জানিয়েছে।

এ সময় মমতা বলেন, ‘আমরা মানবতায় বিশ্বাসী এবং ধর্ম মানেই মানবতা। এটি সব মানুষকে ভালোবাসতে এবং শ্রদ্ধা করতে শেখায়। ধর্ম আমাদের মানুষে মানুষে বিভাজন করতে শেখায় না।’

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘হিন্দু মন্দিরে প্রবেশের আগে যদি আমাকে নিজের ধর্ম প্রমাণ করতে হয়, তার চেয়ে মরে যাওয়াই ভালো। তুমি এমন কেউ নও, যার কাছে আমার ধর্ম প্রমাণ করতে হবে।’

তৃণমূল কংগ্রেস রাজ্যে দুর্গাপূজা বন্ধ করার তোড়জোড় করছে—বিজেপির এমন অভিযোগের জবাবে মমতা বলেন, ‘কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পর থেকে দলটি (বিজেপি) নিজেরা কী কী কাজ করেছে, সেদিকে বরং নজর দেওয়া ভালো।’

এ প্রসঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরো বলেন, ‘তৃণমূলের শাসনামলে রাজ্যে আরো বেশি করে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আমাদের জ্ঞান দেওয়ার আগে ওদের (বিজেপি) উচিত ক্ষমতায় আসার পর ওরা যেসব কাজ করেছে, তা খতিয়ে দেখা।’

মুখ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমি ওদের চ্যালেঞ্জ জানাই, আমাদের আট বছরের সরকার যেসব ধর্মীয় কাজ করেছে এবং আগের সরকার যেসব কাজ করেছে, তার তুলনা করতে।’

বিগত সরকার, অর্থাৎ বাম আমলের তুলনায় রাজ্যে তৃণমূল সরকারের আমলেই বেশি সংখ্যক দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলেও দাবি করেন মমতা।

আর পড়তে পারেন